সিলেট-সুনামগঞ্জে নৌকার প্রচারণায় সরকারি কর্মকর্তারা, অভিযোগ অস্বীকার মোহাম্মদ সাদিকের

ছবি: সংগৃহিত।

সারাবিশ্বডটকম নিউজ ডেস্ক: সুনামগঞ্জ-৪ আসনে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে সিলেট ও সুনামগঞ্জে সরকারি কর্মকর্তারা প্রচার চালাচ্ছেন- জাতীয় পার্টির প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান মিসবাহর এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ওই আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সাবেক সচিব মোহাম্মদ সাদিক। 

মঙ্গলবার দুপুরে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে মোহাম্মদ সাদিক বলেন, ‘সরকারি কর্মচারীরা কেউ আমার পক্ষে অবস্থান নেননি। ভিত্তিহীন অভিযোগ শুনলে দুঃখ লাগে।’ তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমান সংসদ সদস্যের অনেক সুযোগ-সুবিধা আছে, তিনি দু’বারের সংসদ সদস্য। ভোটারদের সঙ্গে তার অনেকভাবে সম্পর্ক আছে। আমার কর্মীরা মাঝে মধ্যে বলে, তারা সংকীর্ণ থাকে। আমি তাকে কোনো দোষ দিচ্ছি না।’

সাদিক বলেন, ‘চাকরি থেকে আমি অবসর নিয়েছি ১০ বছর আগে। সুনামগঞ্জের ধারারগাঁওয়ের একজন নাগরিক সাধারণ হিসেবে নির্বাচন করছি। আমি তো পিএসসির বর্তমান চেয়ারম্যান বা ইসির বর্তমান সচিব না। কিন্তু বর্তমান সংসদ সদস্যের সঙ্গে আমাকে নির্বাচন করতে হচ্ছে। আমার কর্মীরা প্রেসারের (চাপ) মধ্যে আছে। এটা তো সত্য তিনি এখনও সংসদ সংসদ এবং আমি তার সঙ্গে নির্বাচন করছি।’

এর আগে রবিবার (২৪ ডিসেম্বর) দুপুরে সুনামগঞ্জে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের কাছে জাপা প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ অভিযোগ করেন, ‘নৌকার প্রার্থী মোহাম্মদ সাদিকের পক্ষে সিলেট-সুনামগঞ্জে সরকারি কর্মকর্তারা প্রচারণা চালাচ্ছেন। আমার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশনার প্রয়োজনীয় তথ্যপ্রমাণ দিতে বলেছেন। আমি সেগুলো নির্বাচন কমিশন ও রিটার্নিং কর্মকর্তাকে দেবো।’