দেশে করোনায় আরও ৪ জনের মৃত্যু; শনাক্ত ২৯৭

করোনা আক্রান্ত দাফন করা হচ্ছে।

সারাবিশ্বডটকম নিউজ ডেস্ক: গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ৩৮ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২৯৭ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৮০ হাজার ৩০২ জন। মৃত চারজনের তিনজন পুরুষ এবং একজন নারী।  

বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৬৯ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৪৪ হাজার ৯৩৩ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৪৮টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ২৮ হাজার ৩১৭টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৮ হাজার ১৫৩টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এক কোটি ১১ লাখ ৯৩ হাজার ২৫৮টি।  

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১ দশমিক শূন্য পাঁচ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ১২ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৭৬ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত চারজনের মধ্যে রয়েছেন ৪১ থেকে ৫০ বছরের একজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে দুইজন এবং ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে একজন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত চারজনের মধ্যে রয়েছেন ঢাকা বিভাগের একজন, রাজশাহী বিভাগে একজন, খুলনা বিভাগে একজন এবং রংপুর বিভাগে একজন। মৃত চারজনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে তিনজন এবং বেসকারি হাসপাতালে একজন মারা গেছেন।  

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৪৭ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ১০৯ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন তিন লাখ ৮৮ হাজার ৫৯৯ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন তিন লাখ ৫৩ হাজার ৯৪৫ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৩৪ হাজার ৬৫৪ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে। গত শনিবার (২০ নভেম্বর) প্রথমবারের মতো দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কারো মৃত্যু হয়নি। এদিন করোনা শনাক্ত হয়েছিল ১৭৮ জনের।